ভারত সরকার তৈরি করেছে এমন এপ্লিকেশন যা বলে দিবে আপনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কি না

নয়া দিল্লি: ভারত সরকার আরোগ্য সেতু (Aarogya Setu) অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করেছে, যা আপনাকে করোনাভাইরাস (Coronavirus) পরীক্ষা করতে হবে কিনা তা লক্ষণের ভিত্তিতে বলে। এটি আপনার চারপাশের লোকজন করোনায় আক্রান্ত কিনা তাও দেখায়। এই কারণেই সরকার জনগণকে এটি ডাউনলোড করার জন্য জোর দিচ্ছে। ভারত এই অ্যাপটি চালু করে বড় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলিকে পিছনে ফেলেছে। বিশেষজ্ঞরা এবং অনেক সংস্থা ভাইরাসটির বিস্তার রোধে এটি দরকারী বলে অভিহিত করেছে।

এর বাইরেও বিশ্বব্যাংক (World Bank) অ্যাপটির প্রশংসা করে বলেছে যে এটি একটি নতুন পথ দেখিয়েছে। আরোগ্য সেতু চালু হওয়ার কয়েক দিন পর শনিবার গ্লোবাল টেক মেজর অ্যাপল এবং গুগল জানিয়েছে যে তারা স্মার্টফোনে একটি সফ্টওয়্যার তৈরি করছে যা যোগাযোগের সন্ধানে সহায়তা করবে এবং ব্যবহারকারীদের জানিয়ে দেবে যে তারা কোভিড -১৯ (Covid-19) সংক্রামিত ব্যক্তিদের সংস্পর্শে এসেছেন কি না।

অ্যাপল সিইও টিম কুক এবং গুগলের প্রধান নির্বাহী সুন্দর পিচাইকে ট্যাগ করে নিতি আইয়োগের প্রধান নির্বাহী অমিতাভ কান্ত টুইটারে লিখেছেন, ‘কোভিড-১৯ (Covid-19)’ এর যোগাযোগের জন্য ভারত এগিয়ে চলেছে। যা ব্যবহারকারীর তথ্য গোপন রাখার জন্য ডিজাইন করা হয়েছে। আমরা খুশি যে অ্যাপল এবং গুগল আরোগ্য সেতুর আদলে যোগাযোগের সন্ধানের জন্য যৌথভাবে একটি অ্যাপ তৈরি করছে।’

আরোগ্য সেতু (Aarogya Setu) অ্যাপটির বরাত দিয়ে বিশ্বব্যাংক রবিবার একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে, এটি জনগণকে বৃহত্তর ও সংক্রমণ সংক্রমণে শিক্ষিত করতে সহায়তা করতে পারে। বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ অর্থনৈতিক ফোকাসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘কোভিড -১৯ এর বিস্তার পর্যবেক্ষণ করতে ডিজিটাল প্রযুক্তিও ব্যবহার করা যেতে পারে। এ জাতীয় উদ্যোগগুলি মূলত স্বেচ্ছাসেবী, পূর্ব এশিয়ার মহামারী মোকাবেলায় সহায়তা করতে সফল হয়েছে।’

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ‘করোনার লক্ষণগুলির প্রতিবেদনকারীরা উত্সাহিত হতে পারে। ভারত সম্প্রতি আরোগ্য সেতু অ্যাপ্লিকেশন চালু করেছে যা ব্যবহারকারীদের স্মার্টফোনটির অবস্থান ব্যবহার করতে ব্যবহারকারীদের বলার জন্য তাদের কারোনার রিপোর্টটি ইতিবাচক এসেছে এমন কোনও ব্যক্তির সাথে রয়েছে কিনা তা জানাতে অনুমতি দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *